পাঁচমাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

নেত্রোকোনায় পাঁচমাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
সংগৃহীত
মৃত্যুর সময় তিনি পাঁচমাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলো। তিনি আরও জানান, পাশের বাসার অপর এক ভাড়াটিয়া হঠাৎ বাচ্চা মেয়েটির কান্না শুনে এগিয়ে আসেন। তখন দরজা খোলা থাকায় তিনি সহজেই ভেতরে প্রবেশ করতে পারেন এবং রোজিনাকে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান।

নেত্রোকোনার মোহনগঞ্জে বসত বাড়িতে সিলিং ফ্যানের সাথে  গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

গৃহবধূর নাম রোজিনা আক্তার (২৫)। ২০ নভেম্বর  শুক্রবার আনুমানিক রাত  নয়টার দিকে পৌরশহরের উত্তর দৌলতপুরের বালুঘাট এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনায় স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেন রতন জানান, রোজিনার বাড়ি সিাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়ায়। তার স্বামী রাসেল মিয়া একটি ওষুধ কোম্পানির এসআর হিসেবে মোহনগঞ্জে কাজ করেন।

কাজের  সুবিধার্থে তারা গত দুই বছর যাবত ওই এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করছেন। তারা দু'জনই একই এলাকার।   এ দম্পতির আড়াই বছরের একটি মেয়ে রয়েছে এবং মৃত্যুর সময় তিনি পাঁচমাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলো। তিনি আরও জানান, পাশের বাসার অপর এক ভাড়াটিয়া হঠাৎ বাচ্চা মেয়েটির কান্না শুনে এগিয়ে আসেন। তখন দরজা খোলা থাকায় তিনি সহজেই ভেতরে প্রবেশ করতে পারেন এবং রোজিনাকে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। ওই সময় রোজিনার স্বামী রাসেল মিয়া কাজের সুবাদে বাইরে ছিলো, প্রতিবেশীরা তার স্বামীকে ফোনে বিষয়টি জানান। তৎক্ষনাৎ বিষয়টি মোহনগঞ্জ থানাকেও জানানো হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় এবং ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।