শনিবার,২২ Jul ২০১৭
হোম / বিজ্ঞান-প্রযুক্তি / রিডিং অ্যাপ: বইপোকাদের ভার্চুয়াল লাইব্রেরি
০২/১৫/২০১৭

রিডিং অ্যাপ: বইপোকাদের ভার্চুয়াল লাইব্রেরি

-

একটা সময় ছিল যখন বারান্দা কিংবা জানালার ধারে বসে একমনে বই পড়ে অবসরের বিকেলগুলো কেটে যেত। তবে নিত্যনতুন প্রযুক্তির দাপটে চোখের সামনে মলাট বাঁধানো বইয়ের জায়গাটা ল্যাপটপ - স্মার্টফোনের পর্দা দখল করে নিয়েছ। তবে সত্যিকারের বইপ্রেমীদের অভ্যাসটা কিন্তু অক্ষতই আছে। এর পেছনে রয়েছে জনপ্রিয় কিছু রিডিং অ্যাপ, যেগুলোর মাধ্যমে ডিভাইসের পর্দায় ইচ্ছেমতো বই পড়ছেন বইপ্রেমীরা।

গুডরিডস
বই পড়ার জন্য বানানো অ্যাপগুলোর মধ্যে শীর্ষস্থানীয় এই অ্যাপটির ব্যবহারকারীর সংখ্যা গেল বছরেই চার কোটি ছাড়িয়েছে। অসংখ্য বেস্ট সেলার বইয়ের সমারোহে ভরপুর এই অ্যাপটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ারিং-এর জন্য অন্যতম সেরা একটি অ্যাপ। এই অ্যাপটি ব্যবহার করে পাঠক নিজের পছন্দ অনুযায়ী লাইব্রেরি তৈরি করে নিতে পারবেন। এছাড়া কোন কোন বই পড়েছেন বা পড়বেন, তার তালিকা এবং নির্দিষ্ট বইয়ের রেটিং অথবা রিভিউ করতে পারবেন। এছাড়া বন্ধুদের সঙ্গে বই শেয়ার কিংবা পাঠকমহলে আলোচনা করার জন্য বিশেষ ডিসকাশন গ্রুপেরও ব্যবস্থা আছে এই অ্যাপটিতে। অ্যান্ড্রয়েড এবং অ্যাপল - উভয় প্ল্যাটফর্মের গ্রাহকরাই অ্যাপটি নিজেদের ডিভাইসে ইনস্টল করে নিতে পারবেন।

কিন্ডল
ই-বুক রিডার হিসেবে বর্তমানে বিশ্বে অন্যতম জনপ্রিয় একটি ডিভাইস হল কিন্ডল। এই বুক রিডারের মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ও ভাষার বই, সংবাদপত্র কিংবা ম্যাগাজিন একেবারে আপনার হাতের মুঠোয় চলে আসবে। এই ই-বুক রিডারে বিনামূল্যে বই পড়ার পাশাপাশি কেনার সুবিধাও রয়েছে। তবে অ্যামাজনের এই কিন্ডল ডিভাইস কেনা ছাড়াও অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারকারীরা নিজেদের ডিভাইসে কিন্ডল অ্যাপ ইনস্টল করে ইচ্ছেমতো বই পড়তে পারবেন।

ওয়াটপ্যাড
এই অ্যাপটিতে রয়েছে সাড়ে সাত কোটিরও বেশি গল্পের বই। এর পাশাপাশি উপন্যাস, কবিতা বা প্রবন্ধসহ নানা ধরনের বই তো আছেই। এই অ্যাপটির আরেকটি বিশেষত্ব হলো, এখানে লেখকরা নিজেদের লেখা প্রকাশের সুযোগ পান। আর এই লেখা চ্যাপ্টার বাই চ্যাপ্টার প্রকাশিত হয় বলে সম্পূর্ণ বই প্রকাশের আগেই পাঠক তা পড়ে নিতে পারবেন। বইপোকাদের মধ্যে যাদের নিজের বই প্রকাশের ইচ্ছা আছে, তাদের জন্য এই অ্যাপটি হতে পারে গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্ম। অ্যাপটি আইওএস ও এন্ড্রয়েড উভয় অপারেটিং সিস্টেমে চলবে।

ওভারড্রাইভ
লাইব্রেরির সঙ্গে সখ্য যাদের বেশি, তাদের জন্য এই অ্যাপটি হতে পারে ভার্চুয়াল জগতের অন্যতম প্রিয় স্থান। এই অ্যাপটিতে ৩০ হাজারেরও বেশি লাইব্রেরি রয়েছে। এসব লাইব্রেরিতে ই-বুক, অডিওবুক সহ বিভিন্ন ধরনের ভিডিও’র বিশাল সংগ্রহ রয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস উভয় প্ল্যাটফর্মের জন্য কার্যকর এই অ্যাপটি বইপ্রেমীদের ভার্চুয়াল লাইব্রেরি হিসেবে বেশ জনপ্রিয়।

পকেট
নানা ব্যস্ততার কারণে আমরা অনেক সময় ইচ্ছে থাকলেও বই, সংবাদপত্র বা ম্যাগাজিন পড়তে পারি না। বইপ্রেমীদের এই সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পকেট নামের অ্যাপটি ব্যবহার করা যেতে পারে। এই অ্যাপটির মাধ্যমে ইন্টারনেটে বই, ম্যাগাজিন বা সংবাদপত্র পড়তে পড়তে অ্যাপটিতে সেভ করে রেখে পরবর্তীসময়ে অবসরে সেভ করা লিস্ট থেকে তা আবার পড়ে নিতে পারবেন।

এছাড়াও বর্তমান প্রযুক্তি বাজারে অডিওবুকস, গুগল প্লে বুকস, পটেল, স্ক্রিপড এবং বুকক্রলার - এই রিডিং অ্যাপগুলো পাঠক সমাজে ব্যাপক জনপ্রিয়।

- শাহরিয়ার