বৃহস্পতিবার,২৭ এপ্রিল ২০১৭
হোম / বিবিধ / প্রিয় মানুষের জন্য ভালোবাসার উপহার
০২/১৩/২০১৭

প্রিয় মানুষের জন্য ভালোবাসার উপহার

-

সামনেই আসছে ১৪ ফেব্রুয়ারি, বিশ্ব ভালোবাসা দিবস বা ভ্যালেন্টাইনস ডে। দিনটি সারা বিশ্বে আনন্দঘন উৎসবের দিন, আর তা উদযাপিত হয় ভালবাসা এবং অনুরাগের মধ্য দিয়ে।

ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে প্রিয়জনকে উইশ করা ও উপহার দেয়ার রীতি চলে আসছে। যুক্তরাজ্যে মোট জনসংখ্যার অর্ধেক প্রায় ১০০ কোটি পাউন্ড ব্যয় করে ভালোবাসা দিবসের জন্য ফুল, চকোলেটসহ অন্যান্য উপহারসামগ্রী ও শুভেচ্ছা কার্ড কিনতে, আর আনুমানিক ২.৫ কোটি শুভেচ্ছা কার্ড আদান-প্রদান করা হয় এই দিনে। আজকাল পাশ্চাত্য থেকে শুরু করে বাংলাদেশে পর্যন্ত দিনটি মহাসমারোহে উদযাপন করা হয়। তাই আগে থেকেই ছোট বা বড় যে কোনো উপহার চিন্তা করে রাখুন প্রিয়জনের জন্য।

গিফট হিসেবে ভ্যালেন্টাইন কার্ড সবচেয়ে সুলভ ও জনপ্রিয়। প্রতিবছর এই দিনে পৃথিবীতে ১৫ কোটি ভ্যালেন্টাইন কার্ড আদান-প্রদান করা হয়, ক্রিসমাসের পর এটিই দ্বিতীয় বৃহত্তম কার্ড দেওয়া নেওয়ার দিন। ভালো কার্ড পেতে চাইলে যেতে পারেন হলমার্ক বা আর্চিস-এ। এছাড়া বেশিরভাগ বড় বড় মার্কেটের আরো অনেক দোকানেই পাওয়া যাবে মনমতো কার্ড। ১০০ থেকে এবং ১০০০ টাকা পর্যন্ত দামের কার্ড পাবেন এসব দোকানে।

যে-কোনো উৎসবের সঙ্গে উপহার হিসেবে ভালো যায় ফুলের তোড়া। যার মাঝে মা দিবস এবং ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে সবচেয়ে বেশি ফুল উপহার দেয়া হয়। যেহেতু লাল গোলাপ ভালোবাসার নিদর্শন, তাই এ দিনটিতে সারা বিশ্বে ৫ কোটিরও বেশি লাল গোলাপ উপহার দেওয়া হয়ে থাকে। প্রিয় মানুষটির জন্য ফুল কিনতে চাইলে যেতে পারেন শাহবাগে। বনানীতে রয়েছে সারি বাধা দেশি-বিদেশী ফুলের দোকান। এছাড়াও বিভিন্ন এলাকায় রাস্তার পাশে ছোট ফুলের স্টল পেয়ে যাবেন। ফুলের দামের রেঞ্জ বিশাল, যেমন - একটি গোলাপ ৫ টাকায় যেমন কিনতে পাওয়া যায়, আবার কিছু ফুলের তোড়ার দাম ৫০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

ভ্যালেন্টাইন্স ডে-র উপহার হিসেবে প্রখ্যাত চকোলেট নির্মাতা ক্যাডবেরি প্রথম ‘হার্ট’ আকৃতির বাক্সে চকোলেট উপহারের প্রচলন করে। তবে এখন আর সেটি ক্যাডবেরি-এর মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। নানাধরনের চকোলেট থেকে পছন্দের চকোলেটটি বেছে নিন আপনার ভালোবাসার মানুষের জন্য। সুন্দর মোড়কে সাজিয়ে ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে সেটি তুলে দিন তার হাতে। চকোলেটের দাম ৫০ থেকে শুরু করে কয়েক হাজার টাকা পর্যন্ত হতে পারে।

আপনার ভালোবাসার মানুষটি বইপ্রেমিক হলে তাকে লাল ফিতায় সাজিয়ে বই উপহার দিন। ১লা ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে বইমেলা। ভালোবাসা দিবসে প্রিয়জনের হাত ধরে চলে যান সেখানে। কিনে দিতে পারেন প্রেমের কবিতার বই অথবা বইয়ের প্রথম পাতায় ভালোবাসা জানিয়ে লিখে দিতে পারেন নিজের স্বরচিত কিছু লাইন কিংবা তার প্রিয় লেখকের অটোগ্রাফ দেয়া বই উপহার দিয়ে চমকে দিন প্রিয়জনকে। বইমেলা ছাড়াও নীলক্ষেত থেকে যে-কোনো ধরনের বই কিনতে পারেন।

ছেলেদের উপহার দেওয়ার জন্য খুব জনপ্রিয় একটি আইটেম হলো সুগন্ধি। যদি জানা থাকে কোন র্ব্যান্ডের কোন সুগন্ধি আপনার ভালোবাসার মানুষটির পছন্দ, তবে চিন্তা কমে যায় অনেকটাই, না জেনে নতুন সুগন্ধি উপহার দেয়া থেকে একটু সতর্ক থাকুন। এছাড়াও দিতে পারেন খেলার ম্যাচের টিকিট বা ঘড়ি।

মেয়েদের জন্য ভালো উপহার হতে পারে পোশাক, মেকআপ কিট, পছন্দের ব্রান্ডের লিপস্টিক, হাতঘড়ি, পার্স, সানগ্লাস, হেয়ার স্ট্রেইটেনার, স্টাফড টয়, ছোটখাট গহনা - আংটি, লকেট বা কানের দুল।

ভ্যালেন্টাইনস ডে-র ক্ষেত্রে কিছু প্রতীকও রয়েছে; যেমন - কিউপিড, হার্ট। রোমান পৌরাণিক উপাখ্যান মতে, কিউপিড ছিলেন প্রেমের দেবী ভেনাসের ছেলে। কিউপিড একজন খর্বাকৃতির বালক, হাতে তার তীর-ধনুক, পিঠে তূণ এবং একজোড়া পাখা লাগানো। তিনি তার তীর ছুঁড়ে যুবক-যুবতীর মনে প্রেমের সঞ্চার করেন। অন্যদিকে জোড়া গোলাপি হার্ট হলো আবেগ এবং ভালোবাসার প্রতীক।

পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই পারস্পরিক ভালোবাসা এবং সৌহার্দ্য বিনিময়ের জন্য ১৪ই ফেব্রুয়ারি সবার জন্য উন্মুক্ত। উপহার যে শুধু স্বামী-স্ত্রী বা প্রেমিক-প্রেমিকাকে দিতে হবে এমন নয়, চাইলে আপনি পরিবারের কাউকে বা প্রিয় বন্ধুকেও দিতে পারেন।

- নৌশিন মিথী