শনিবার,২৩ মার্চ ২০১৯
হোম / খাবার-দাবার / ডিমের হরেকরকম
০৩/০৪/২০১৯

ডিমের হরেকরকম

-

মোটামুটি সব বাড়িতেই যে কয়টি কমন উপাদান মজুদ থাকে তার মাঝে ডিম হলো একটি। দৈনন্দিন খাবার তৈরির বাইরেও যে ডিম দিয়ে আরও কতরকম ডিশ তৈরি করা যায় তার ইয়ত্তা নেই। ডিমের তৈরি কিছু রেসিপি এবার পাঠকদের জন্য দেয়া হলো। রেসিপি ও ছবি : আলেয়া হক


আচারি ডিম

উপকরণ
ডিম সিদ্ধ- ৫টি
লবণ- প্রয়োজনমতো
গোলমরিচ গুঁড়ো- ১/২ চামচ
শুকনো মরিচ- ৪টি
পেঁয়াজ কুচি- ৩টি
টমেটোবাটা- ১টি
আদাবাটা- ১/২ চামচ
রসুনবাটা- ১/২ চামচ
হলুদ গুঁড়ো- ১ চামচ
তেঁতুল ক্কাথ- ১ চামচ
তেল- ১/২ কাপ


প্রণালি
প্রথমে ডিম ভালো করে সিদ্ধ করে নিন। খোসা ছাড়িয়ে অল্প লবণ এবং হলুদ, মরিচগুঁড়ো দিয়ে মাখিয়ে হাল্কা তেলে লাল করে ভেজে নিতে হবে।
পাত্রে তেল আরেকটু গরম করে নিয়ে তাতে পেঁয়াজ কুচি সোনালি করে ভাজতে হবে। এরপর তাতে আস্ত শুকনা মরিচ দিয়ে ২/৩ মিনিট নাড়াচাড়া করে আবার টমেটোবাটা, আদা ও রসুনবাটা, হলুদ ও গোলমরিচ গুঁড়ো এবং লবণ দিয়ে ভালো করে কষাতে হবে।

মশলা তেলের উপর ভেসে উঠলে ভাজা সিদ্ধ ডিম, তেঁতুলের ক্কাথ দিয়ে ঢাকা দিয়ে দিন। মাখা মাখা হয়ে এলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

ডিমের কোর্মা

উপকরণ

ডিম সিদ্ধ- ৫টি
ছোট এলাচ, তেজপাতা, দারুচিনি- ১টি করে
পেঁয়াজবাটা- ২টি, ফোড়নের জন্য
কিশমিশবাটা- ১ চামচ
আদাবাটা- ১/২ চামচ
রসুনবাটা- ১/২ চামচ
দুধ- ১/২ কাপ
দই- ২ চামচ
লবণ- প্রয়োজনমতো
চিনি- ১ চামচ
কাঁচামরিচ বাটা - ২টি
তেল ৩ চামচ।


প্রণালি

পাত্রে তেল গরম করে সিদ্ধ করা ডিম হাল্কা করে ভেজে নিতে হবে। ডিম ভাজা হলে অন্য একটা পাত্রে তুলে রেখে দিন। ওই তেলে এলাচ, তেজপাতা, দারুচিনি দিয়ে ভাজতে হবে।

গন্ধ বের হলে পেঁয়াজবাটা দিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে একে একে কিশমিশবাটা, আদাবাটা, রসুনবাটা দিয়ে আরো কিছুক্ষণ কষাতে হবে। মশলা ভাজা হয়ে হালকা বাদামি হলে তাতে দুধ দিয়ে দিন। এরপর লবণ এবং চিনি দিন।

কাঁচামরিচবাটা দিয়ে ১ কাপমতো পানি দিন। ফুটে গেলে দই, ডিম দিয়ে নেড়ে নিন। মাখা মাখা হলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ঝাল ভুনা ডিম কারি

উপকরণ

ডিম সিদ্ধ- ৬টি
হলুদগুঁড়ো- ২ চা চামচ
লালমরিচের গুঁড়ো- ১ চা চামচ
গোলমরিচগুঁড়ো- ১/২ চা চামচ
দুধ- ১ কাপ
শুকনো মরিচ- ১০টি
পেঁয়াজ- ২/৩টি, বড় আকারের
রসুনবাটা- ১ চা চামচ
আদাবাটা- ১/৪ চা চামচ
তেল- প্রয়োজনমতো
লবণ- স্বাদমতো
চিনি- ২ চা চামচ।



প্রণালি

প্রথমে ডিম সিদ্ধ করে নিয়ে একটি কাঁটাচামচ দিয়ে কেটে নিন। দেখবেন ডিম যেন ভেঙে না যায়।
এবার কেটে নেওয়া ডিম একটি বাটিতে নিয়ে দুধ দিন এবং এর সঙ্গে হলুদ, মরিচ, গোলমরিচগুঁড়ো ও লবণ মিশিয়ে ১০ মিনিট আলাদা করে রাখুন। এবার একটি প্যানে তেল গরম করে নিয়ে শুকনো মরিচ দিয়ে ভাজতে থাকুন।
কিছুক্ষণ ভাজা হলে এতে পেঁয়াজ, লবণ, চিনি দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন। এরপর মেখে রাখা ডিম আলাদা করে তুলে রেখে ম্যারিনেটের ঝোলটুকু প্যানে দিয়ে ফেলুন ও নেড়ে নিন। এরপর ডিমগুলো দিয়ে ২ কাপ পানি দিয়ে দিন। রান্না করতে থাকুন মাঝারি আঁচে।
পছন্দমতো ঝোল শুকিয়ে এলে কড়াই নামিয়ে ধনেপাতা কুচি দিয়ে গরম গরম ঝাল ভুনা ডিম কারি।

স্টাফড এগ

উপকরণ

ডিম- ২টি
আলু- ২টি
চিকেন ফ্রাই- ১ পিস
পেঁয়াজ- ১টা, বড় সাইজের
মাশরুম- ৪/৫টি, কুঁচি করা
চিজ- ২ টেবিল চামচ, গ্রেট করা
বাটার- ২ চা চামচ
কাঁচামরিচ- ২টা, কুচি করা
ধনেপাতা- প্রয়োজনমতো


প্রণালি

প্রথমে আলু সিদ্ধ করে নিন। কিন্তু পুরোপুরি সিদ্ধ করবেন না। তারপর আলুর খোসা না ছাড়িয়ে আড়াআড়িভাবে আলুটি ফুটো করুন।
আলুর ভেতর থেকে চামচ দিয়ে শাস বার করে আনুন। তারপর ফাঁকা জায়গায় বাটার লাগিয়ে তারমধ্যে চিজ, ছোট ছোট টুকরো করে কাটা ফ্রাই চিকেন, ঝিরিঝিরি করে কুচানো ফ্রাই করা পেঁয়াজ, কাঁচা-লঙ্কা কুচি, টুকরো করে কাটা মাশরুম ফ্রাই, মরিচগুঁড়ো ও লবণ দিন।

এবার তারমধ্যে ডিম ফাটিয়ে দিন। তার উপর নুন ও মরিচগুঁড়ো, চিজ ও ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে দিন। তারপর একটি পাত্রে জল গরম করে খুব সাবধানে রান্না করুন।

এগ পোচ কারি

উপকরণ

ডিম- ৪টি
পেঁয়াজ কুচি- ১ কাপ
পেঁয়াজবাটা- ২ টেবিল চামচ
আদা ও রসুনবাটা- ১ চা চামচ
দারুচিনি- ২ টুকরা
এলাচ- ২টি
হলুদের গুঁড়ো- আধ চা চামচ
মরিচগুঁড়ো- আধ চা-চামচ
টমেটো কুচি- ১/২ কাপ
তেল- প্রয়োজনমতো
লবণ- স্বাদমতো
পানি- ১ কাপ


প্রণালি

ফ্রাইংপ্যানে ২ টেবিল চামচ তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ, আদাবাটা, রসুনবাটা, দারুচিনি, এলাচ, হলুদ-মরিচগুঁড়ো, লবণ ও সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন।
মশলা কষা হলে টমেটোকুচি দিন। এককাপ পানি দিন দিন। ঝোল ফুটে উঠলে তাকে ঘন হতে দিন। ঘন হলে তাতে একে একে ডিমগুলো ভেঙে দিয়ে দিন। খুব সাবধানে দেবেন যেন কুসুম ভেঙে না যায়।
এবার ঢাকনা দিয়ে মৃদু আঁচে রেখে দিন ডিম জমাট বাঁধার জন্য। ঝোল ঘন হয়ে ডিম জমে এলে কাঁচামরিচ ও ধনেপাতা দিয়ে নামিয়ে নিন।

নারকেল দুধে ডিমের কারি

উপকরণ

ডিম (সিদ্ধ)- ৩টি
তেল- ২ টেবিল চামচ
সরিষা- ১ চা চামচ
শুকনা মরিচ- দুই তিনটি
ধনিয়া পাতা কুচি- এক টেবিল চামচ
পেঁয়াজ বাটা- পৌনে এককাপ
আদাবাটা- এক চা চামচ
রসুনবাটা- এক চা চামচ
মরিচগুঁড়া- আধা চা চামচ
হলুদগুঁড়া- আধা চা চামচ
ধনিয়া গুঁড়া- আধা চা চামচ
গরম মশলা গুঁড়া- আধা চা চামচ
নারকেল দুধ- আধাকাপ
লবণ- পরিমাণমতো।



প্রণালি

পাত্রে তেল গরম করে এর মধ্যে সরিষা ছেড়ে দিন। এরপর শুকনো মরিচ দিয়ে নাড়তে থাকুন। পেঁয়াজবাটা দিয়ে হাল্কা বাদামি হয়ে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।
আদা, রসুনবাটা দিয়ে তিন-চার মিনিট ভেজে নিন। এরপর একে একে ধনিয়াগুঁড়া, হলুদগুঁড়া, গরম মশলাগুঁড়া ও লবণ দিয়ে দিন। ভাজতে থাকুন যতক্ষণ তেল উপরে না উঠে আসে।
দেড় কাপ খাবার পানি দিয়ে পাত্রটি ঢেকে দিন এবং মাঝারি আঁচে দশমিনিট রাখুন। পাত্রে একে একে নারকেল দুধ ও সিদ্ধ করে রাখা ডিম দিয়ে ঢাকনা বন্ধ করে মৃদু আঁচে দুই/তিন মিনিট রাখুন। চুলা থেকে নামিয়ে ধনিয়া পাতা কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।