শনিবার,২৩ মার্চ ২০১৯
হোম / রূপসৌন্দর্য / ফাউন্ডেশন বাছাই এবং ব্যবহার করবেন যেভাবে
০২/১৪/২০১৯

ফাউন্ডেশন বাছাই এবং ব্যবহার করবেন যেভাবে

- অনন্যা ডেস্ক:

ছোট কোনও অনুষ্ঠানহোক আর বড় কোনও উৎসব, নিজেকে যত্ন করে সাজিয়ে তোলার জন্যে পোশাকের সঙ্গে সঙ্গে মানানসই মেকআপ অনেকটাই গুরুত্বপূর্ণ। আর এই মেকআপের জন্যে বাজারে রয়েছে একের পর এক প্রসাধনী সামগ্রী। যার মধ্যে ফাউন্ডেশন অন্যতম।
একটা নিখুঁতমেকআপের জন্যে ফাউন্ডেশনের গুরুত্ব নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না।কিন্তু অনেক সময় নিজের ত্বক অনুযায়ী ঠিক ফাউন্ডেশন খুঁজে নেওয়া কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। ত্বকের বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী ফাউন্ডেশন না নিলে, যতোই ভালো ব্র্যান্ডের হোক না কেন তা আপনাকে হতাশ করবে।
কেমন করে নিজের জন্য উপযুক্ত ফাউন্ডেশন বেছে নেবেন, কি কি গুণাবলী খুঁজবেন, কেমন করে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করবেন? এই সব নিয়েই দেয়া হলো কিছু দরকারি টিপস।

ত্বকের ধরণ:

আগে আপনার ত্বকের ধরন যাচাই করুন। যদি আপনার ত্বক তৈলাক্ত হয়, বা আপনি যেখানে থাকেন সেখানে যদি খুব গরম থাকে, সে ক্ষেত্রে ব্যবহার করার চেষ্টা করুন ওয়েল ফ্রি ফাউন্ডেশন। সংবেদনশীল ত্বকের ক্ষেত্রে এই সতর্কতা আরও জরুরি।
খুব ভারী ফাউন্ডেশন ব্যবহার করবেন না। ভারী ফাউন্ডেশন আপনার ত্বকের লোমকূপ আটকে দেয়। এতে ব্রণ হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। যাদের ক্ষেত্রে ব্রণ সমস্যা বেশি আছে, তারা কেনার সময় দেখে নিন ফাউন্ডেশনে স্যালিসিলিক অ্যাসিড আছে কি না। দরকার হলে হালকা ফাউন্ডেশন বেছে নিন।

শেড বাছাইয়ের নিয়ম:

ফাউন্ডেশন কিনতে গেলে অনেক ফাউন্ডেশন দেখে বিভ্রান্ত হবেন না। পারলে যাওয়ার আগে বাড়িতে অনলাইনে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিভিন্ন ফাউন্ডেশন সম্পর্কে জেনে নিন। স্টোরে গিয়ে দরকারে বিশেষজ্ঞর সঙ্গে আলোচনা করে নিন। নিজের হাতে অল্প লাগিয়ে দেখুন কিছুক্ষণ।
শুকিয়ে গেলে যদি ত্বকের সঙ্গে ফাউন্ডেশনের শেড মিলে যায় তবেই কিনুন। স্টোরের আলো অনেক সময় সঠিক রং চেনার ক্ষেত্রে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করে। সে ক্ষেত্রে বাইরে সূর্যের আলোয় মিলিয়ে নিন। দরকার হলে মেকআপ আর্টিস্টের সঙ্গে পরামর্শ করেও নিতে পারেন।

ব্যবহার করার নিয়মাবলী:

ফাউন্ডেশন আপনার ত্বকের উপর একটা প্রলেপ দিয়ে দেয়। তাই কখনোই সরাসরি ত্বকের উপর ফাউন্ডেশন লাগাবেন না বা না লাগানোর চেষ্টা করবেন। আপনার ত্বকের ধরন অনুযায়ী ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে তার পরে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন।
শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে ময়েশ্চারাইজার লাগানোর আগে ত্বক ভালো করে ধুয়ে এক্সফলিয়েট করে নিন। ফাউন্ডেশন ব্যবহারের ক্ষেত্রে ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন কিন্তু নিজের আঙ্গুল ব্যবহার করা সব থেকে ভালো। চেষ্টা করবেন মুখের সঙ্গে গলার বা ঘাড়ের উপরেও একইভাবে ফাউন্ডেশন লাগানো হলো কি না। দুটি জায়গার শেড মিলিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করুন।

সানস্ক্রিন এসপিএফ:

আগেই বললাম যে ফাউন্ডেশন আপনার ত্বকের উপর একটা প্রলেপের মত থাকে তাই বাইরে দিনের বেলায় বেরোতে গেলে সানস্ক্রিন খুবই দরকার। কারণ অতিরিক্ত সূর্যের আলো আপনার ত্বকে ট্যান এর কারণ হতে পারে। সে ক্ষেত্রে ফাউন্ডেশন কেনার সময় এসপিএফ আপনার ফাউন্ডেশনে আছে কি না দেখে নিন।
গরম বা ঠাণ্ডার সময় পরিবেশের তাপমাত্রার পার্থক্য থাকে বলে আলাদা আলাদা ফাউন্ডেশন কিনে রাখতে পারেন। অন্যান্য সময় এই দুই ফাউন্ডেশন মিশিয়েও ব্যবহার করা সম্ভব। তবে শুধু নিজের পছন্দ বা ধারণার উপর না থেকে অন্য কারও থেকে দ্বিতীয় মতামত নিন।
আপনার ফাউন্ডেশন আদৌ আপনার ত্বকের সঙ্গে মিলছে কি না জেনে নিন। তবে যাদের মেকআপে অ্যালার্জি আছে বা ময়েশ্চারাইজার মাখলেও অ্যালার্জি হয়, তারা ফাউন্ডেশন ব্যবহার করার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। খুব সংবেদনশীল ত্বক হলে ফাউন্ডেশনের ব্যবহার এড়িয়ে যাওয়া ভালো সাময়িক সময়ের জন্য।


সূত্র: বোল্ডস্কাই