সোমবার,১৯ নভেম্বর ২০১৮
হোম / ফ্যাশন / ফ্যাশনে রিপড জিন্স
১০/২৮/২০১৮

ফ্যাশনে রিপড জিন্স

-

হালকা ছেঁড়া বা সুতা ওঠা স্টাইলের জিন্সগুলো নতুন প্রজন্মের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বেশ কিছুদিন ধরেই। তবে এই স্টাইলটি বেশ পুরানো, সেই ষাট থেকে সত্তরের দশকে সেলেব্রিটিদের মধ্যে রিপড জিন্স বেশ জনপ্রিয়তা পায়। ফ্যাশনের নিয়ম অনুসারে তা আবার ফিরে এসেছে নতুনভাবে।

জিন্সের সাধারণ যে ধরন রয়েছে তার মধ্যেই রিপড জিন্স বেশ ভালোভাবে জায়গা করে নিয়েছে। স্কিনি বা ঢোলাঢালা বয়ফ্রেন্ড জিন্স যেকোনো স্টাইলের মধ্যেই রিপড জিন্স পাওয়া যাচ্ছে।

স্কিনি রিপড জিন্স
বেশ বোল্ড এবং স্টাইলিশ ফ্যাশন সেন্স যাদের তাদের জন্য এই ধরনের জিন্স বেশ উপযোগী। তবে আঁটসাঁট জিন্স এবং এর সঙ্গে ছেঁড়াভাব মোটেও সবার জন্য উপযোগী নয়। যারা এমন খোলামেলাভাবে নিজেকে উপস্থাপন করতে দ্বিধাবোধ করেন না তাদের জন্যই এই জিন্স উপযোগী।

রিপড বয়ফ্রেন্ড জিন্স
স্কিনির তুলনায় এই স্টাইলটি বেশ ফ্যাশন উপযোগী। এছাড়া কমবেশি সবাই ক্যারি করতে পারে। ক্যাজুয়াল গেটআপের ক্ষেত্রে এই জিন্স দারুণ উপযোগী। আর মোটামুটি সব ধরনের ফিগারের সঙ্গেও মানিয়ে যায়।

যেকোনো স্টাইলের জিন্স বেছে নেওয়ার আগে নিজের বডি শেইপ সম্পর্কে ধারণা থাকা অত্যন্ত জরুরি। যদি কারো শরীরের নিচের অংশ ভারি হয় তাহলে ঢোলা বা বয়ফ্রেন্ড জিন্স তার জন্য আদর্শ। এতে হিপ ও থাইয়ের অংশ দেখতে কিছুটা চাপা মনে হবে।

তবে যদি নিজের ফিগার নিয়ে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী হন এবং তা লুকাতে না চান সেক্ষেত্রে স্লিম ফিট জিন্স আদর্শ। সঙ্গে আলাদা মাত্রা যোগ করবে রিপ্ড স্টাইল।

পোশাক এবং মেকআপ সবক্ষেত্রেই ব্যালেন্স অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ সঠিকভাবে সামঞ্জস্য রাখতে না পারলে অনেক সাধের জামাতেও দেখতে বেমানান লাগতে পারে। তাই লেয়ার করা পোশাক বাছাইয়ের ক্ষেত্রে ব্যালেন্স-এর বিষয়টি খেয়াল রাখা জরুরি।

রিপ্ড জিন্সের ক্ষেত্রে আকর্ষণ সেদিকেই থাকে মূলত। আর তাই যদি জিন্সে ছেঁড়াভাব বেশি থাকে তাহলে শার্ট বা টপস বেছে নিন বেসিক কোনো কিছু। এতে দেখতে সোবার লাগবে। তবে টপসের দিকে যদি মনোযোগ টানতে চান তবে হালকা রিপ্ড জিন্স বেছে নিন।

রিপ্ড জিন্স সভাবতই খুব ক্যাজুয়াল একটি পোশাক। তবে এতে একটু ড্রেসিভাব আনতে সঙ্গে কিছু অনুষঙ্গ যুক্ত করুন। হাতে ব্যাঙ্গেলস, ব্রেসলেট, গলায় লম্বা মালা বা কানে হালকা ঝোলানো দুল, এই অনুষঙ্গগুলো রিপ্ড জিন্সের সঙ্গে বেশ মানানসই। চাইলে একঘেঁয়েমি দূর করতে গলায় কালারফুল স্কার্ফ পেঁচিয়ে নিন।

এই ধরনের জিন্সের সঙ্গে জুতা বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও কিছুটা সচেতন হতে হবে। উঁচু হিল এই জিন্সের সঙ্গে মানানসই হতে পারে তবে সেক্ষেত্রে এর ডিজাইনের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। কিছুটা ক্যাজুয়াল ডিজাইনের হিল জিন্সের সঙ্গে মানাবে। তাছাড়া নিচু জুতা, ফ্ল্যাট বা দু’ফিতার স্যান্ডেল, ব্যালেরিনা শু, কনভার্স এই সব জিন্সের সঙ্গে দারুন মানিয়ে যায়।

যেকোনো পোশাকই পরার আগে তা নিজের সঙ্গে কতটুকু মানানসই তা বুঝে নিতে হয়। রিপ্ড জিন্স পরার ক্ষেত্রে জায়গার বিষয়টিও খেয়াল রাখতে হবে। অফিস বা ফর্মাল অনুষ্ঠানে এই পোশাক পরা উচিত নয়। কলেজ, ভার্সিটি বা বন্ধুদের আড্ডার জন্য বেছে নেওয়া গেলেও অনেক ক্ষেত্রেই এই জিন্স বেমানান। তাই সব বিষয় মাথায় রেখে তবেই পোশাক বেছে নিতে হবে।

- অদ্বিতী