বুধবার,১৫ অগাস্ট ২০১৮
হোম / বিনোদন / পোড়ামন-২ঃ তরুন হৃদয়ের অমর প্রেম ও বিষাদ
০৭/৩১/২০১৮

পোড়ামন-২ঃ তরুন হৃদয়ের অমর প্রেম ও বিষাদ

-

হল সঙ্কট, মানসম্মত সিনেমার আকাল আর হলে গিয়ে সিনেমা দেখার সংস্কৃতির অনুপস্থিতি, সব মিলিয়ে বাংলা সিনেমার বেহাল দশা প্রকটভাবে দৃশ্যমান। তবে বাংলা সিনেমার এই দুর্দিনেও প্রতি বছর দুই ঈদকে কেন্দ্র করে সরব হয় সিনেমাপাড়া। ঈদের অবসরে পরিবার বা বন্ধুদের সাথে অনেকেই ঢুঁ মারেন সিনেমাহলে, আর তাই ঈদকে উপলক্ষ করে সিনেমা মুক্তির হিড়িক পরে যায় প্রযোজক-পরিবেশকদের মাঝে।

প্রত্যেক ঈদের মতো এবারও বেশ কিছু সিনেমা মুক্তি পেয়েছে দেশের হলগুলোতে, আর মুক্তি পাওয়া সিনেমাগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সাড়া পাচ্ছে নবাগত পরিচালক রায়হান রাফি’র “পোড়ামন ২” সিনেমাটি। ২০১৩ সালে দেশের অন্যতম শীর্ষ চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া মুক্তি দেয় জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত “পোড়ামন” সিনেমাটি। দর্শক-সমালোচক সবার মন জয় করা সিনেমাটি জাজের সবচেয়ে ব্যবসাসফল সিনেমাগুলোর মধ্যে অন্যতম। আর তারই ধারাবাহিকতায় এবার জাজ পোড়ামন ২ সিনেমাটি মুক্তি দিলো।

ছবির নাম দেখে অনেকেই হয়ত ভাবছেন ২০১৩ সালের পোড়ামন সিনেমার সিকুয়েল পোড়ামন ২। তবে তাদের জ্ঞাতার্থে আগেই জানিয়ে রাখতে চাই, নামে মিল থাকলেও এটি আসলে পোড়ামন সিনেমার সরাসরি সিকুয়েল নয়। সম্পূর্ণ মৌলিক গল্পে পরিচালক রায়হান রাফি প্রেমের সেই দিকটি দর্শকদের সামনে উপস্থাপন করেছেন যা মানুষের হৃদয়কে পোড়ায়, কাঁদায়, আবেগতাড়িত করে। বাংলা সিনেমার চিরাচরিত প্রেমের গল্পের ধারণাকেই পুঁজি করে আবর্তিত সিনেমার মূল বিষয়বস্তু। গ্রামীণ প্রেক্ষাপটে তরুণ-তরুণীর প্রেম, আর সেই প্রেমকে ঘিরে সৃষ্ট জটিলতা বা টানাপড়েনের চিত্রকল্পই পোড়ামন ২। প্লটটি কিছুটা গতানুগতিক হবে, সেটি সিনেমার প্রমো দেখেই আঁচ করা গিয়েছিলো, তবে নবাগত পরিচালক রায়হান রাফি যেই পারদর্শিতা ও বাস্তবিকতার সঙ্গে ছবিটি নির্মাণ করেছেন, তা হলে গিয়ে ছবিটি দেখা প্রত্যেককেই বিস্মিত করেছে এবং আশান্বিত করেছে। গতানুগতিক গল্পের সিনেমাকেও সমৃদ্ধ চিত্রনাট্য আর পরিচালনায় মুনশিয়ানার মাধ্যমে উপভোগ্য করে তুলেছেন। ছবির প্রথম ও শেষ দৃশ্যের চূড়ান্ত বাস্তবিক সাদৃশ্য দর্শকদের মন ছুয়ে যাবে নিশ্চিত। প্রথম সিনেমা, নতুন জুটিকে নিয়ে কাজ, গ্রামীণ প্রেক্ষাপটে গল্প বলা, সবমিলিয়ে পোড়ামন ২-এর মাধ্যমে পরিচালক রায়হান রাফি’র রাজসিক উত্থান দেখল ঢালিউড।

সিনেমার মূল দুটি চরিত্র হলো সুজন শাহ এবং পরী। তাদের প্রেম এবং সংশ্লিষ্ট ঘটনাবলীকে ঘিরে সিনেমার গল্প গড়ে উঠেছে। সুজন শাহ চরিত্রে অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় মুখ নবাগত সিয়াম আহমেদ। বিজ্ঞাপন, মিউজিক ভিডিও এবং অসংখ্য নাটকে অভিনয় করা প্রিয়মুখ সিয়াম বড়পর্দায় নিজের উপস্থিতি পোড়ামন ২-এর মাধ্যমে জানান দিলেন। সিনেমার নায়ক সুজন শাহের চরিত্রটি বেশ প্রাণবন্ত ও অকপট, আর একইসাথে কিংবদন্তি নায়ক সালমান শাহ-এর ভক্ত সে। প্রথম সিনেমা হিসেবে বেশ চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র বেছে নিয়েছিলেন সিয়াম, চরিত্রে কতটা মানিয়ে যেতে পারেন তা নিয়ে অনেকেরই সন্দেহ ছিলো। তবে চরিত্রের প্রতি সুবিচার করার মাধ্যমে সমালোচকদের কড়া জবাব দিয়েছেন সিয়াম। ছবির দুই অর্ধে তার চরিত্রের মুড ছিলো দু’রকম, আর সেই অনুযায়ী সিয়ামের অভিনয় যথার্থ হয়েছে। অনেকে এটিকে লাউড বা ওভারএ্যাকটিং ভেবে ভুল করতে পারেন। কেননা চরিত্রের দাবি মেটানোর জন্যেই সিয়াম প্রাণপণ চেষ্টা করেছেন এবং নিঃসন্দেহে সফল হয়েছেন।

অপরদিকে নায়িকা পরীর চরিত্র রুপায়ন করেছেন পূজা চেরি। এবছরেরই শুরুর দিকে মুক্তি পায় তার প্রথম ছবি “নুরজাহান”। তবে সেই ছবিটি বেশি সাড়া জাগাতে না পারলেও পোড়ামন ২ দিয়ে দর্শক হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। পরী চরিত্রটিতে তার অভিনয় দাগ কেটে যাবে দর্শকহৃদয়ে।

সিয়াম, পূজা ছাড়াও ছবির অন্যান্য চরিত্রগুলোকে পর্দায় উপস্থাপন করেছেন বাপ্পারাজ, ফজলুর রহমান বাবু, আনোয়ারা, সাইদ বাবু, নাদের চৌধুরী সহ আরো অনেকে।

রোমান্টিক-ড্রামা ধরনের সিনেমার একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হচ্ছে শ্রুতিমধুর সঙ্গীত। এই দিকটিতে পূর্ণ নম্বর ছবির নির্মাতারা। ছবির প্রত্যেকটি গান দর্শক-শ্রোতাদের বিমোহিত করবে। প্রয়াত নায়ক সালমান শাহ-কে উৎসর্গ করে ছবিতে “নাম্বার ওয়ান হিরো” গানটি এবং “সুতো কাটা ঘুড়ি” গান দুটি দীর্ঘ সময় মানুষের মুখে মুখে ফিরবে।

কারিগরি দিক দিয়ে ছবিটিকে নিখুঁত করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছেন নির্মাতা। বিশেষভাবে, ছবিটির চিত্রগ্রহণের কথা উলে­খ করতে হবে। গ্রাম-বাংলার চিরাচরিত সৌন্দর্য যেমন তুলে এনেছেন চিত্রগ্রাহক, একই সাথে শৈল্পিক দৃশ্যায়নের মাধ্যমে লোকেশনগুলোর সৌন্দর্য বর্ধন করেছেন। ড্রোন শট এবং ওয়াইড শটের ব্যবহার চিত্রগ্রাহকের সুনিপুণ দক্ষতায় যেন নির্বাক দৃশ্যগুলোতে প্রাণসঞ্চার করেছে। এক কথায়, পোড়ামন ২-এ সমাজব্যবস্থার ক্রূর রীতিনীতির কাছে নিষ্পাপ প্রেমের অসহায়ত্ব দর্শকদের হৃদয়কে পোড়াবে, কাঁদাবে, আবেগাপ্লুত করবে।

- হোসাইন মাহমুদ আবদুল্লাহ