শনিবার,২৩ Jun ২০১৮
হোম / রূপসৌন্দর্য / ঋতু বদলে ত্বক চর্চা
০৩/০৮/২০১৮

ঋতু বদলে ত্বক চর্চা

-

শীত-এর পালা শেষ, বসন্তের ছোঁয়া চারপাশে। এসময়ে বাতাসে থাকে চোরা শীতের স্পর্শ যা সময় সময় বেশ আরামপ্রদ লাগলেও ত্বকের জন্য সঠিক না-ও হতে পারে। এসময়ের না ঠান্ডা, না গরম আবহাওয়ায় অনভ্যস্ত আপনার ত্বক হয়ে উঠতে পারে শুষ্ক ও খসখসে। তাই এ সময় নিজের বাড়তি যত্ন নেওয়া প্রয়োজন।

পাঠকদের জন্য তাই দেয়া হোল ত্বক ও চুলের যত্নে ঘরোয়া কিছু উপায়।

মুখের ত্বকের জন্য তেল
ত্বকের নমনীয়তা ধরে রাখতে এই মৌসুমে বিভিন্ন নামিদামি ব্র্যান্ডের ময়েশ্চারাইজার বাদ দিয়ে বেছে নেওয়া যেতে পারে তেল। শুনতে অদ্ভুত শোনালেও সত্যি যে, তেল সব ধরনের ত্বকের জন্য দারুণ উপকারী। কিছু তেলে রয়েছে অ্যন্টিএজিং উপাদান যা ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখার পাশাপাশি ত্বক টানটান করতেও সাহায্য করে। অলিভ অয়েল, আমন্ড অয়েল ইত্যাদি সব ধরনের ত্বকের জন্য উপকারী। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য টি-ট্রি অয়েল, সুইট আমন্ড অয়েল এবং গ্রেপ সিড অয়েল বেছে নেওয়া যেতে পারে।

শরীর স্ক্রাব করতে ‘বাথ সল্ট’
সারাবছর যে বডি স্ক্রাবগুলো ব্যবহার করা হয় এই মৌসুমে সেগুলো সরিয়ে রেখে বেছে নিন বডি সল্ট। কারণ বাথ সল্ট ত্বকে জমে থাকা মৃত কোষ দূর করতে সাহায্য করে এবং নিস্তেজ হয়ে পড়া ত্বকে জেল্লা ফিরিয়ে আনে। তাছাড়া কুসুম গরম পানিতে বাথ সল্ট ছড়িয়ে কিছু গা এলিয়ে থাকা যায়। এতে পায়ের ফোলাভাব কমবে, ক্লান্তি দূর হবে এবং পিঠে ব্যথা কমবে।

ঠোঁটের বাড়তি যত্ন
ত্বকের অন্যান্য অংশের তুলনায় ঠোঁটের চামড়া অনেকটাই পাতলা হয়ে থাকে। তাই শুষ্ক মৌসুমে ঠোঁট খুব দ্রুত আর্দ্রতা হারায়। সব সময় সঙ্গে লিপ বাম বা লিপ বাটার রাখতে হবে। তাছাড়া লেবু ও চিনি আর সামান্য মধু মিশিয়ে ঠোঁট স্ক্রাব করে নিতে হবে।

হাতের যত্নে হ্যান্ড ক্রিম
দিনে বেশ কয়েকবার হাত ধোয়ার প্রয়োজন পড়ে। আর একবার হাত ধোয়ার পরই হাত শুষ্ক হয়ে পড়ে। তাই হাতের যত্নে সব সময় সঙ্গে হ্যান্ড ক্রিম রাখা উচিত। দুধ বা দুধ জাতীয় উপাদান আছে এমন হ্যান্ড ক্রিম সবচাইতে বেশি উপকারী। আর এই মৌসুমে হালকা হ্যান্ড ওয়াশ ব্যবহার করতে হবে।

চুলের যত্নে ‘হট অয়েল ম্যাসাজ’
মাথার ত্বক এবং চুলে পুষ্টি জোগাতে হট অয়েল ম্যাসাজের জুরি নেই। এতে চুল হারানো আর্দ্রতা ফিরে পাওয় এবং চুল নরম ও মসৃণ হয়ে ওঠে। ভালো ফলাফলের জন্য দুই থেকে তিনটি তেল যেমন- ক্যাস্টর অয়েল, আমন্ড অয়েল, অলিভ অয়েল এবং নারিকেল তেল নিয়ে পরিমাণমতো মিশিয়ে হালকা গরম করে চুলের গোড়ায় ম্যাসাজ করতে হবে হালকা হাতে। প্রতিবার শ্যাম্পু করার আগে চুলে তেল দেওয়া অত্যন্ত জরুরি।

চুল ও ত্বকের জন্য মধু
ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজারের মতো কাজ করে মধু। পাকা কলা ভালোভাবে ভর্তা করে তার সঙ্গে খানিটা অলিভ অয়েল ও মধু মিশিয়ে খানিকটা ঘন পেস্ট তৈরি করতে হবে। এই মিশ্রণটি শ্যাম্পু করার আগে মাথায় ও পুরো চুলে মেখে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে। শুষ্ক তালু ও চুলের জন্য এই মিশ্রণটি দারুণ। ত্বকের জন্য কয়েক ফোঁটা গোলাপজলের সঙ্গে মধু ও লেবুর রস মিশিয়ে তা ত্বকে হালকাভাবে ঘষে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে।

- অদ্বিতী