বুধবার,১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮
হোম / রূপসৌন্দর্য / মোহময়ী আঁখি পল্লবের জন্য
০২/১৮/২০১৮

মোহময়ী আঁখি পল্লবের জন্য

-

সুন্দর চোখ আর ঘন-কালো পাপড়ি সৌন্দর্য আরও অনেকটা বাড়িয়ে দিতে পারে। আর চোখের পাপড়ি আকর্ষণীয় করে তুলতে পারে মাস্কারা।

চোখের পাপড়ি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং স্পর্শকাতর বলে এই অংশ সাজাতে কিছুটা বাড়তি সচেতনতা অবলম্বন করা প্রয়োজন। চোখের পাপড়ি সুন্দর করতে মাস্কারা ঠিক যতটা কার্যকর, তেমনি সাধারণ ভুলের কারণে মাস্কারা পুরো মুখের মেইকআপ নষ্ট করে দিতে পারে।

তাই মেকআপের এই পর্যায়ে কিছুটা সচেতন হওয়া প্রয়োজন। এক্ষেত্রে অবশ্যই কিছু কৌশল রপ্ত করা দরকার।

* মাস্কারার তুলিতে যদি অতিরিক্ত প্রসাধনী লেগে থাকে তাহলে তা চোখের পাপড়ি সুন্দর করার বদলে বরং উল্টোটাই করবে। তাই যদি মনে হয় তুলিতে অতিরিক্ত মাস্কারা উঠে এসেছে, তাহলে একটি টিস্যু পেপার হালকা চেপে মুছে নিলেই অতিরিক্ত মাস্কারা ছড়িয়ে যাওয়ার সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যাবে।

* শুধু মাস্কারা দিয়ে কাঙ্ক্ষিত ঘন পাপড়ি পাওয়া যাচ্ছে না? প্রথম কোট মাস্কারা ব্যবহারের পর দ্বিতীয় কোটের আগে চোখের পাপড়িতে সামান্য পাউডার ছড়িয়ে দিন। পাপড়ির ঘনত্ব আরও বাড়বে।

* লম্বা বাঁকানো পাপড়ি চাইলে মাস্কারা পাপড়ির গোরার দিকে বেশি ঘন করে সামনের দিকে হালকা করে দিতে হবে। এতে দেখতে পাপড়ি অনেকটা লম্বা দেখাবে।

* চোখের পাপড়ি যদি বেশি পাতলা হয়, তাহলে পাতার উপরে এবং নিচে দুই পরতে মাস্কারা লাগিয়ে নিতে হবে।

* চোখের নিচের পাতায় মাস্কারা লাগানো বেশ দুষ্কর কারণ চোখের নিচে ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই এই সমস্যা এড়াতে মাস্কারা দেওয়ার সময় নিচে চামচ উল্টো করে ধরে তারপর মাস্কারা লাগাতে পারেন। এতে মাস্কারা চোখের নিচে ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা কমে আসবে।

* মেয়াদ ফুরানোর আগেই অনেক সময় মাস্কারা শুকিয়ে যায়। এক্ষেত্রে মাস্কারার বোতলে কয়েক ফোঁটা স্যালাইন সল্যুশন অথবা আই ড্রপ ঠেলে খানিকটা ঝাঁকিয়ে নিলে তা আবার ব্যবহারযোগ্য হয়ে উঠবে।

মাস্কারা ব্যবহার করার সময় এর মুখ এমনভাবে চেপে ধরতে হবে যেন ভেতরে বাতাস ঢুকতে না পারে। কারণ বাতাসের সংস্পর্শে এলে মাস্কারা শুকিয়ে যায়। অনেকে ব্রাশে বেশি মাস্কারা নেওয়ার জন্য ব্রাশটি বোতলের ভিতরে পাম্প করে থাকেন। এতে ভিতরে বাতাস প্রবেশ করে আর মাস্কারা নষ্ট হয়ে যায় সময়ের আগেই।

শুধু সহজ উপায় জানলেই চলবে না কিছু ভুলের কারণে মাস্কারা সৌন্দর্য নষ্ট করে দিতে পারে। তাই এড়িয়ে চলতে হবে ভুলগুলো।

> চোখের পাপড়ি ঘন করতে অনেকেই অতিরিক্ত কোট মাস্কারা দিয়ে থাকেন। এতে চোখের পাপড়ি ভার হয়ে যায়, অনেক সময় মাস্কারাও ছড়িয়ে পড়ে এবং পাপড়িগুলো আঠার মতো লেগে থাকতে পারে। সাধারণত ভালো মাস্কারার ক্ষেত্রে প্রথম কোটই যথেষ্ট, তবে দ্বিতীয় কোটও দেওয়া যেতে পারে।

> যদি দ্বিতীয় কোটেও পছন্দসই ঘন পাপড়ি না পাওয়া যায়, তাহলে মাস্কারা বদলে ফেলাই ভালো।

> চোখের পাপড়ি শুধু ঘন হলেই চলবে না। পাপড়ি কার্ল না করা হলে দেখতে কিছুটা বেমানানই মনে হতে পারে। কিছু মাস্কারার বোতলে পাপড়ি কার্ল করতে পারার বিষয় লেখা থাকলেও তা খুব একটা কার্যকর হয় না। তাই প্রথমে ল্যাশ কার্লার দিয়ে পাপড়ি কার্ল করে এরপরই মাস্কারা ব্যবহার করা উচিত।

> অনেকেই মাস্কারা ব্যবহারের ক্ষেত্রে শুধু চোখের পাপড়ির সামনের অংশে মাস্কারা লাগিয়ে থাকেন। এতে পাপড়ি ভারি হয়ে যায়। আর পাপড়ি ঝরে পড়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। তাই চোখের পাপড়ির মনমতো ঘনত্ব পেতে ল্যাশ লাইন বা পাপড়ির গোড়া থেকে মাস্কারা লাগানো উচিত।

সহজ কিছু বিষয় খেয়াল রেখে মাস্কারা ব্যবহার করলে মেকআপ নষ্ট হওয়ার ঝুঁকি অনেকটাই এড়ানো সম্ভব হবে।

- অদ্বিতী