বুধবার,২৬ Jul ২০১৭
হোম / স্বাস্থ্য-ফিটনেস / ভুরিভোজে বদহজম ও কিছু হার্বাল সমাধান
০৬/২২/২০১৭

ভুরিভোজে বদহজম ও কিছু হার্বাল সমাধান

-

রোজার এই মাসে খাওয়াদাওয়ার নিয়মিত অভ্যাসে বেশ বড়সড় পরিবর্তন আসে। তারপর ঈদের দিন আবার এই এক মাসের রুটিন বদলে স্বাভাবিক নিয়মে ফিরে যাওয়া, সব মিলিয়ে বেশ অসামঞ্জস্যতা আসে। আর এই থেকে বদহজমেরও সূত্রপাত ঘটে। তাই এই সময়ের হজম প্রক্রিয়াকে সচল রাখতে কার্যকর কিছু ঘরোয়া টোটকা জানা থাকা চাই।

এখানে হজমের সমস্যা দূর করার কিছু সহজ উপায় তুলে ধরা হলো।

অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার
হজম প্রক্রিয়া সচল রাখতে অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার বেশ কার্যকর। অ্যাসিডিক উপাদান থাকলেও বদহজমে এই ভিনেগার বেশ উপকারী। এককাপ পানিতে এক টেবিল চামচ ভিনেগার ও এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে মিশ্রণটি পান করলে চটজলদি উপকার পাওয়া যাবে।

মৌরিদানা
অতিরিক্ত ঝাল বা মশলাদার খাবারখাওয়ার কারণে যদি বদহজম হয় তাহলে তার উপশমে মৌরিদানা বেশ উপকারী। মৌরিদানায় থাকা প্রাকৃতিক তেল পেটের সমস্যা সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে। মৌরিদানা শুকিয়ে ভেজে, গুঁড়া করে নিতে হবে। এক চা চামচ মৌরিদানার গুঁড়া পানির সঙ্গে গুলিয়ে দিনে দু’বার পান করতে হবে। এছাড়া এককাপ গরম পানিতে দুই চা চামচ মৌরিদানা ফুটিয়ে চায়ের মতো করেও পান করা যেতে পারে। যদি বদহজমের লক্ষণ দেখা দেয় তাহলে মৌরিদানা চাবিয়ে খেলেও কিছুটা উপকার পাওয়া যাবে।

আদা
হজমে সহায়ক পাচকরস ও এনজাইমের নিঃসরণ বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। আর তাই হজমের সমস্যায় আদা বেশ ভালো প্রতিষেধক। বিশেষত অতিরিক্ত খাওয়ার পরে হজমের জন্য আদা বেশ উপকারী। অতিরিক্ত খাওয়ার পর কয়েক টুকরা তাজা আদা সামান্য লবণ ছিটিয়ে চুষে খেতে পারেন।
- দুই চামচ আদার রস, এক চামচ লেবুর রস, এক চিমটি লবণ মিশিয়ে খেতে হবে। পানির সঙ্গে মিশিয়েও ওই মিশ্রণ সেবন করা যেতে পারে।
- এছাড়া এক কাপ গরম পানিতে দুই চামচ আদার রস ও এক চামচ মধু মিশিয়ে পান করুন।
- আদা চা-ও বদহজমের কারণে পেট ব্যথা উপশমের জন্য উপকারী।
- রান্নার সময় তরকারিতে আদা ব্যবহার করলে তা হজমে সহায়তা করবে।

বেকিং সোডা
পেটে এসিডিটির কারণে বদহজমের সমস্যা হয়ে থাকে। বেইকিং সোডা এসিডিটি কমাতে সাহায্য করে। আধা গ্লাস পানিতে দেড় চামচ বেইকিং সোডাগুলে পান করলে পেটে ব্যথায় আরাম পাওয়া যাবে। বদহজম এবং পেটে গ্যাসের সমস্যা থেকে রেহাই পেতে বেইকিং সোডা অত্যন্ত উপকারী একটি উপাদান।

ভেষজ চা
বিভিন্ন ভেষজ উপাদান দিয়ে বানানো চা শরীরের জন্য বেশ উপকারী। ভারি খাবার খাওয়ার পর এক কাপ ভেষজ চা বেশ উপাদেয়। বাজারে বিভিন্ন ভেষজ উপাদান সমৃদ্ধ চা-য়ের টি-ব্যাগ কিনতে পাওয়া যায়। পছন্দসই ফ্লেইভারের টি ব্যাগ নিয়ে গরম পানিতে ডুবিয়ে তৈরি করে ফেলতে পারেন পছন্দসই ভেষজ চা। বিশেষত পেপারমিন্ট এবং ক্যামলাই টি পেটের সমস্যায় বেশি উপকারী। পেটে জ্বালাপোড়া এবং অস্বস্তিকর অনুভূতি উপশমে এই উপাদান মিশ্রিত চা বেশি কার্যকর।

জিরা
বদহজম, গ্যাস, ডাইরিয়া ইত্যাদি বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে জিরা বেশ উপকারী। জিরা হজমে সহায়ক এনজাইমের নিঃসরণ বৃদ্ধিতে সাহায্য করে তাই এটি বেশ উপকারী। ভাজা জিরা গুঁড়া করে এক চামচ পরিমাণ নিয়ে তা এক গ্লাস পানিতে মিশিয়ে পান করুন। যদি পেট ভার হয়ে থাকার সমস্যা দেখা দেয় তাহলে সোয়া চামচ গোল মরিচ ও জিরার গুঁড়া এক গ্লাস পানিতে মিশিয়ে নিয়মিত পান করলে উপকার পাওয়া যাবে।

দারুচিনি
পেট ভার হয়ে থাকা, গ্যাসের সমস্যা ও বদ হজমে দারুণ উপকারী দারুচিনি। দেড় চামচ দারুচিনি গুঁড়া ফুটন্ত পানিতে মিশিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে ছেঁকে নিন। হালকা গরম থাকা অবস্থায় পান করুন।

ধনিয়া
হজমে সহায়ক এনজাইম তৈরি করে ধনিয়া বদহজমের সমস্যা কমিয়ে পেট শীতল রাখতে সাহায্য করে। এক গ্লাস বাটার মিল্কের সঙ্গে এক চা চামচ ভাজা ধনিয়ার গুঁড়া মিশিয়ে দিনে এক থেকে দু’বার পান করুন। এসিডিটির সমস্যা কমাতে ধনিয়া পাতার রস পান করা যেতে পারে।

- বেলা দত্ত