সোমবার,২৩ অক্টোবর ২০১৭
হোম / জীবনযাপন / মাত্রাতিরিক্ত ভালোবাসা আর নয়
০৫/২৫/২০১৭

মাত্রাতিরিক্ত ভালোবাসা আর নয়

-

গ্রিক পুরাণে স্বর্গের পরী ইরিডাইসের প্রেমে পড়েন অর্ফিয়াস। দেবতা এরিসটেইয়াসের সঙ্গে দুর্ঘটনায় অরফিয়াস ইরিডাইসকে হারিয়ে ফেলে। তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় পাতালপুরীতে। কিন্তু অরফিয়াস তাঁর জাদুকরী এক বাদ্য মূর্ছনায় হারপুন বাজিয়ে শেষ পর্যন্ত তার ভালোবাসার মানুষকে ফিরে পান। আবার প্রগাঢ় ভালোবাসার দৃষ্টান্ত বুঝাতে আমরা প্রায়শই রোমিও জুলিয়েট, ইউসুফ-জুলেখা বা শাহজাহান-মমতাজের ভালোবাসার উপাখ্যানের কথা তুলে আনি। অনেকে আবার নিজেদের ভালোবাসার সম্পর্ককে রোমান্টিক গল্প-উপন্যাসের চরিত্রের সঙ্গে মিলিয়ে ফেলেন। কিন্তু বাস্তবতা সবসময় গল্প-উপন্যাস বা কল্পনা মেনে চলে না। বাস্তবতা অনেক সময়ই ভিন্ন হয়। নিজেকে মানিয়ে নিতে হয় পরিবেশের সঙ্গে এবং বুঝতে হয় সঙ্গীর পারিপার্শ্বিক অবস্থাও।

অহেতুক উদ্বিগ্ন হওয়া বন্ধ করুন
আপনার সঙ্গী আপনাকে যথেষ্ট সময় দিচ্ছে কিনা এটা চিন্তা করে আপনি উদ্বিগ্ন থাকেন? অথবা প্রায়শ মনে করেন যে আপনার সঙ্গী আপনার কাছাকাছি থাকছে না যতটা আপনি চাইছেন? তাহলে এখনি আপনার উচিত এসব বাজে চিন্তা বন্ধ করা এবং অতিরিক্ত কল্পনাপ্রবণ না হওয়া।

একে অন্যকে জায়গা করে দিন
মনে রাখবেন, ভালোবাসার সম্পর্ক মানেই অযাচিত হস্তক্ষেপ নয়। বরং বিচ্ছেদ বা বিরহ সম্পর্কে অহেতুক দুশ্চিন্তা বন্ধ করুন। অপরের একান্ত জগৎকে সম্মান করুন। বিশেষজ্ঞরা বলেন এতে করে সম্পর্ক আরো পোক্ত ও দীর্ঘস্থায়ী হয়।

মাত্রাতিরিক্ত ঈর্ষাপরায়ণ হবেন না
এটা ঠিক ঈর্ষা সবসময় খারাপ নয়, এটি মানুষকে উচ্চাকাক্সক্ষী করে তোলে। বিশেষজ্ঞরা বলেন হালকা ঈর্ষা থাকা ভালো এতে করে সঙ্গী একাত্মতা ও সম্পর্কের দাবি অনুভব করে। তবে মাত্রাতিরিক্ত ঈর্ষাপরায়ণতা বিকারগ্রস্ততায় রূপ নিতে পারে।

সঙ্গীকে কখনোই হুমকি নয়
বিশেষজ্ঞরা বলেন অনেক সময় যারা নিজেদের সম্পর্কের ক্ষেত্রে খুব বেশি একাত্মতা অনুভব করেন তারা প্রায় সময়ই সঙ্গীকে বিচ্ছেদের ভয় দেখান। একই সময় তারা আশা করেন তার হুমকি কাজে দেবে এবং সঙ্গী তার কথা মেনে চলবে। এগুলো খুবই শিশুতোষ আচরণ। অনেক সময় এমন আচরণ অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে পারে।

ভালোবাসা যেন তিক্ততায় পৌঁছে না যায়
আপনার সঙ্গী যখন আপনার কাছ থেকে দূরে থাকবে বা নিজের কাজে ব্যস্ত থাকবে তখন তাকে মাত্রাতিরিক্ত ফোন, ক্ষুদেবার্তা বা ফেসবুকে বারবার দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করে অস্বস্তিকর পরিস্থিতি তৈরি করবেন না। মনে রাখা উচিত অতিরিক্ত কোনো কিছুই ভালো নয়। এমনটা কেবল দুজনের মধ্যে অনিরাপত্তাই তৈরি করে।

অতিরিক্ত কোনো কিছুই ভালো নয়, এমনকি তা ভালোবাসা হলেও। তাই সঙ্গীর প্রতি ভালোবাসাকে সম্পর্কের শেকল বানিয়ে না ফেলে একে অপরকে স্পেস দিন, ভালো থাকুন।

- রিজবানুল হাসান