বুধবার,২৬ Jul ২০১৭
হোম / জীবনযাপন / বাড়িয়ে নিন আত্মবিশ্বাস
০৪/১৮/২০১৭

বাড়িয়ে নিন আত্মবিশ্বাস

-

আমরা যেসব মানুষের প্রশংসা করা পছন্দ করি, তাদের মধ্যে আত্মবিশ্বাসী মানুষগুলো অন্যতম। তারা নিজেদের ভয় কিংবা সমস্যাগুলোর মুখোমুখি হতে মোটেও কুণ্ঠিত হন না। আমাদের জীবনে এমন বেশ কিছু সময় আসে, যখন আমরা নিজেদের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলি। যারা কম আত্মবিশ্বাসী অথবা যারা মোটেও আত্মবিশ্বাসী নন, তারা কিছু অভ্যাস ও কাজের মাধ্যমে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠতে পারেন।

- সবসময় চেষ্টা করুন পজেটিভ থাকার, কখনো নিজের মনে কোনো প্রকার নেগেটিভ চিন্তাভাবনা স্থান দেবেন না। কোনো কাজ যদি কঠিন মনে হয়, বিশ্বাস রাখবেন যে, আপনি তা পারবেন। মানুষের সঙ্গে মেশার ব্যাপারে সচেতন হন। যারা সবসময় নেগেটিভ চিন্তা করে বা নেগেটিভ কথা বলে, তাদের এড়িয়ে চলুন। তারা নিজেরা যেমন আত্মবিশ্বাসহীনতায় ভোগে, আপনাকেও টেনে তাদের পর্যায়ে নিয়ে যাবে। জীবনের বিভিন্ন সমস্যাগুলো নিয়ে না ভেবে সেগুলো কীভাবে সমাধান করবেন, তা ঠিক করুন।

- সব সময় চেষ্টা করুন ঠোঁটে এক টুকরো হাসি ধরে রাখার। আপনি কতটা আত্মবিশ্বাসী তা আপনার চলাফেরা, অঙ্গভঙ্গি, কথাবার্তার মাধ্যমেই ফুটে উঠবে। যদি আপনি সামনের মানুষটির দিকে তাকিয়ে কথা বলেন, তবে তিনি বুঝতে পারবেন আপনি নিজের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী। এই একটুকু হাসি শুধু আপনাকেই না, আপনার আশপাশের মানুষগুলোর মনও ভালো রাখবে।

- কথা বলার সময় ধীরে কথা বলুন। বিশেষজ্ঞদের মতে, যারা ধীরস্থিরভাবে কথা বলেন তারা নিজেরা আশপাশের মানুষের কাছেও আত্মবিশ্বাসী বলে গণ্য হন।

- যে কোনো কাজে অতি দ্রুত হার মেনে নেবেন না। যারা দ্রুত হার মেনে নেয়, তারা ধীরে ধীরে নিজের ওপর আস্থা হারাতে থাকে। নিজেকে সবসময় মনে করিয়ে দিন আপনি কত বাধার সম্মুখীন হয়ে আজ এই পর্যায়ে পৌঁছতে পেরেছেন। আর সামনের যে কোনো বাধা-বিঘ্ন আপনি সাহসিকতার সঙ্গে পার করতে পারবেন।

- যে কোনো কাজে যাওয়ার আগে নিজের কাজ সম্পর্কে জেনে নিন। এতে কাজটি করতে আপনার সুবিধা হবে, অন্য কেউ আপনাকে দেখে শিখতেও পারবে। এভাবে কাজে আপনাকে কোনো অপ্রীতিকর পরিস্থতির সম্মুখীনও হতে হবে না। কাজে সাফল্য পেলে আপনি নিজের সিদ্ধান্তের প্রতি বিশ্বাসী হতে পারবেন।

- নিজেই নিজের প্রশংসা করুন। প্রতিদিন সকালে কিছু সময়ের জন্য আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজেকে নিয়ে ভাবুন। আপনার চরিত্রের ভালো দিকগুলো খুঁজে বের করুন। ভালো পোশাক পরার চেষ্টা করুন, এতে নিজেকে নিজের কাছেই ভালো লাগবে। আপনি আজ পর্যন্ত যে সফলতাগুলো পেয়েছেন, তার জন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করুন। সঙ্গে নিজের ওপর বিশ্বাস রাখুন যে, সামনে আপনি আরও ভালো কিছু অর্জন করতে পারবেন। নিজের খারাপ দিকগুলোও জানুন আর চেষ্টা করুন সেগুলো শুধরে নেওয়ার।

- কখনো কখনো মানুষের জীবনে সফলতার চাইতে বিফলতাই বেশি আসে। এটা কোনো খারাপ দিক নয়। এর জন্য মন খারাপ করে বসে থাকলে চলবে না। মানুষের জীবনে সফলতা সহজে আসে না, এর জন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হয়। সঙ্গে নিজের ওপর বিশ্বাস রেখে এগিয়ে যেতে হয়। যখন মনে হবে আপনি কিছুই পারেন না বা আপনাকে দিয়ে কিছুই হবে না, নিজের অতীতের দিকে একপলক তাকিয়ে দেখুন। অতীতের অর্জন ও সফলতাগুলোকে মাথায় রেখে এগিয়ে যান।

- রাজিয়া সুলতানা